Items filtered by date: Thursday, 04 June 2020

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার মুড়িয়াউক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মলাইকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদ ১ শাখার উপ সচিব মোহাম্মদ ইফতেকার আহমেদ চৌধুরী এক প্রজ্ঞাপনে তাকে বরখাস্ত করেন। হবিগঞ্জের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেন।প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, প্রধানমন্ত্রী পদত্ত মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে নগদ অর্থ সহায়তা কর্মসূচির সুবিধাভোগীদের তালিকা প্রণয়নে অনিয়ম ও স্বজন প্রীতির অভিযোগ স্থানীয় তদন্তের প্রমাণিত হয়েছে। জেলা প্রশাসক স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেন। সেই আলোকে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।প্রসঙ্গত চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মলাইর বিরুদ্ধে নগদ প্রণোদনার তালিকায় একই ব্যাক্তির নামে একাধিক নম্বর ব্যবহারের অভিযোগ পাওয়া যায়। এর মাঝে একটি নম্বরে ৯৯ জন, একটিতে ৯৭ জন, একটিতে ৬৫ জন ও একটি নম্বরে ৪৫ জনের নাম দেওয়া হয়েছে।এদিকে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রাজিউড়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার শফিউল ইসলাম তফসিরের বিরুদ্ধে ১০টাকা কেজির চাল আত্মসাতের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকেও সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদ ১ শাখার উপ সচিব মোহাম্মদ ইফতেকার আহমেদ চৌধুরী অপর এক প্রজ্ঞাপনে তাকে বরখাস্ত করেন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৫ জন মারা গেছেন। ফলে করোনায় মোট মারা গেলেন ৭৮১ জন। একই সময়ে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৪২৩ জন। ফলে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৭ হাজার ৫৬৩ জন।
বৃহস্পতিবার (৪ জুন) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন।
তিনি ৫০টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৩ হাজার ৭৮৮টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ১২ হাজার ৬৯৪টি। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো তিন লাখ ৫৮ হাজার ২৭৭টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে আরও দুই হাজার ৪২৩ জনের দেহে। ফলে দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ হাজার ৫৬৩ জন। আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে আরও ৩৫ জনের। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৭৮১ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ৫৭১ জন। এ নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১২ হাজার ১৬১ জন।বরাবরের মতোই করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষিত থাকতে সবাইকে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, মুখে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান ডা. নাসিমা।

Published in সংবাদ

শতকরা ৬০ ভাগ বাসভাড়া বাড়িয়ে জারি করা প্রজ্ঞাপন চ্যালেঞ্জ করে দাখিল করা রিট আবেদন হাইকোর্টের কার্যতালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছেবিচারপতি জে বি এম হাসানের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ আজ বৃহস্পতিবার (৪ জুন) রিট আবেদনটি কার্যতালিকা থেকে বাদ দেওয়ার আদেশ দেন। সকল পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করেই যৌক্তিকভাবে ভাড়া বাড়ানো হয়েছে-রাষ্ট্রপক্ষ থেকে এমন তথ্য জানানোর পর আদালত রিট আবেদনটি কার্যতালিকা থেকে বাদ দেন। শতকরা ৬০ ভাগ বাসভাড়া বাড়িয়ে জারি করা প্রজ্ঞাপন বাতিল চেয়ে গত ১ জুন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার হুমায়ুন কবির পল্লব রিট আবেদনটি দাখিল করেন। আবেদনের ওপর তিনি নিজেই শুনানি করেন। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সমরেন্দ্র নাথ বিশ্বাস।চার যুক্তিতে করা রিট আবেদনে প্রজ্ঞাপনটি বাতিল করার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছিল। একইসঙ্গে ওই প্রজ্ঞাপনটি কেন বাতিল করা হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারির আবেদন করা হয়। পাশাপাশি অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশনা হিসেবে প্রজ্ঞাপনটি স্থগিত চাওয়া হয়।

রিট আবেদনে বলা হয়, কেবল বাসভাড়া বাড়ানো বৈষম্যমূলক, অযৌক্তিক ও নিপীড়নমূলক। কারণ গণপরিবহন বলতে বাস, ট্রেন, লঞ্চ ও বিমানকে বোঝায়। এখানে অন্য কোনো পরিবহনের ভাড়া না বাড়িয়ে কেবল বাসভাড়া বাড়ানো হয়েছে যা বৈষম্যমূলক।রিট আবেদনে বলা হয়, করোনা সংক্রমণের প্রেক্ষাপটে কয়েক মাস ধরে সব কিছু বন্ধ। নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষ মারাত্মক অর্থনৈতিক সংকটে। তারা কর্মহীন ও বেকার হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে। এ অবস্থায় বাসভাড়া বাড়ানো তাদের জন্য নিপীড়নমূলক ছাড়া আর কিছু নয়। কারণ বাসে চলাচল করে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষ।

রিট আবেদনে আরো বলা হয়, বাসভাড়া বাড়াতে হলে যেসব প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে হয় তার কিছুই করা হয়নি। ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে স্টেকহোল্ডারদের মত নেওয়া হয়নি। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) করোনাকালীন গণপরিবহনের ভাড়া ৮০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব করলেও সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে গত ৩১ মে প্রজ্ঞাপন জারি করে। 

Published in সংবাদ

করোনাভাইরাস লকডাউনে ঘরে থাকতে বাধ্য হওয়ায় সৌদি আরবের পুরুষদের আসল চরিত্র বেরিয়ে এসেছে। অনেকে গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করেছিলেন, সে সব তথ্য ফাঁস হয়ে গেছে। ফলে লকডাউনের এই সময়ে দেশটিতে অস্বাভাবিকভাবে বিয়ে বিচ্ছেদ বেড়ে গেছে। সৌদি আরবের দৈনিক পত্রিকা ওকাজের এক প্রতিবেদনে বিষয়টি উঠে এসেছে।বুধবার দ্য নিউ আরব জানায়, ঐতিহ্যগতভাবে একাধিক বিয়ে করার প্রবণতা সৌদি পুরুষদের। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে পুরুষদের এই ধারণা প্রত্যাখ্যান করছেন নারীরা, সেইসঙ্গে সৌদি সমাজে পরিবর্তন আনছেন।করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে আরোপ করা লকডাউনে ঘরবন্দী হয়ে পড়ে মানুষ। এতে অনেক নারীর কাছে প্রকাশ হয়ে পড়ে যে, তাদের স্বামীরা গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করেছে। যা বিয়ে বিচ্ছেদকে তরান্বিত করেছে।ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা, কারফিউসহ নানা বিধিনিষেধের সময় শুধু ফেব্রুয়ারিতেই সৌদি আরবে বিয়ে বিচ্ছেদ ঘটেছে ৭ হাজার ৪৮২টি। অন্য সময়ের তুলনায় দেশটিতে বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা বেড়েছে ৩০ শতাংশ। যার অধিকাংশই ঘটেছে রাজধানী রিয়াদ ও মক্কা শহরে।এদিকে লকডাউনে মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ আরব আমিরাতেও বিয়ে বিচ্ছেদের ঘটনা বাড়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। এর মধ্যে দুবাই কর্তৃপক্ষ এপ্রিলে ঘোষণা দেয় যে, বিয়ে বিচ্ছেদ সম্পর্কিত সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। তবে অনলাইনের মাধ্যমে বিয়ে অনুষ্ঠিত করা যাবে।দুই আরব দেশই লকডাউন তুলে সীমিত আকারে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু করেছে। এর মধ্যে সব ধরনের মসজিদ খুলে দিয়েছে সৌদি আরব। আরব আমিরাতে অনেকটা পুরোদমে শুরু হয়েছে ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড।

সূত্র- দ্য নিউ আরব।

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পরিবহন মালিক ও শ্রমিক যারা আছেন, সবাইকে বলব, গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতেই হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললেও কিছু কিছু পরিবহনের বিরুদ্ধে বাড়তি ভাড়া আদায় এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানার অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। সরকারি নির্দেশনা অমান্যকারী এসব পরিবহনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার (৪ জুন) নিজের সরকারি বাসভবন থেকে  সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় যারা স্বাস্থ্যবিধি মানবে না, তারাসহ যেসব পরিবহন বাড়তি ভাড়া আদায় করবে, তাদের বিরুদ্ধেও আইনি ব্যবস্থা নিতে বিআরটিএ হাইওয়ে পুলিশ ও জেলা পুলিশ লাইনসহ সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানান তিনি।হাসপাতালে করোনা রোগীদের সঙ্গে বিরূপ আচরণেরও সমালোচনা করেন কাদের। বলেন, কিছু কিছু হাসপাতালের বিরুদ্ধে করোনা রোগীদের উপেক্ষা করার অভিযোগ রয়েছে। আমি আশা করব, আপনারা আরো মানবিক হবেন।

Published in সংবাদ
হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলায় নবাগত সহকারী কমিশনার (ভূমি) (এসিল্যান্ড) হিসেবে যোগদান করেছেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্র্রেট ইফফাত আরা জামান উর্মি।
 
সোমবার (পহেলা জুন) বানিয়াচংয়ে সর্ব প্রথম একজন নারী এসিল্যান্ড হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগদান করেন তিনি । এর আগে তিনি ৪ঠা মে বানিয়াচংয়ে অনানুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব পালন শুরু করেন। হবিগঞ্জের ডিসি অফিসে পদোন্নতি জনিত কারনে বদলি হওয়া বিদায়ী এসিল্যান্ড ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মতিউর রহমান খানের স্থলাভিষিক্ত হলেন এসিল্যান্ড ইফফাত আরা জামান উর্মি। জানা যায়, ৩৫তম বিসিএস ক্যাডার হিসেবে ইফফাত আরা জামান উর্মি চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করে পদোন্নতি লাভ করেন। তিনি শরীয়তপুর জেলার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন।
 
এ ব্যাপারে তিনি বিজয়ের আলো টেলিভিশন’কে জানান, বানিয়াচংয়ের নবাগত এসিল্যান্ড ইফফাত আরা জামান উর্মি, বিদায়ী এসিল্যান্ড মোঃ মতিউর রহমান খান মহোদয়ের কাজের ধারাবাহিকতায় কাজ করার চেষ্ঠা করবেন তিনি। বানিয়াচং উপজেলার সার্বিক উন্নতি ও অগ্রযাত্রায় সর্বোচ্চ সেবা দেয়ার ইচ্ছা পোষণ করেন তিনি। সুন্দর ও উন্নত বানিয়াচং গড়ে তোলতে তিনি বানিয়াচংয়ের সর্বস্থরের মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।

হবিগঞ্জে পৃথক স্থানে বজ্রপাতে তিন কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। তারা সবাই হাওরে মাছ ধরতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

বৃহস্পতিবার (৪ জুন) জেলার বাহুবল ও আজমিরীগঞ্জ উপজেলায় বিভিন্ন সময় পৃথক দুটি ঘটনায় তাদের মৃত্যু হয়। নিহতরা হলেন- বাহুবল উপজেলার পুটিজুরী ইউনিয়নের নোয়াঐ গ্রামের দরদ মিয়ার ছেলে ওরখাইদ (১১) ও সাতকাপন ইউনিয়নের মানিকা গ্রামের আব্দুস ছালামের ছেলে নছর উদ্দিন (১৭) এবং আজমিরীগঞ্জ উপজেলার নয়ানগর গ্রামের সমর আলীর ছেলে লিলু মিয়া (১৬)।

বাহুবল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান জানান, উপজেলার নোয়াঐ গ্রামের ওরখাইদ তার বড় ভাই জুনাইদসহ আরও দুজনকে সঙ্গে নিয়ে সকালে বাড়ির পাশের খালে মাছ ধরতে যান। এ সময় বজ্রসহ বৃষ্টি শুরু হলে তিনি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ ঘটনায় তার ভাই জুনাইদ ও বন্ধু ওসমান আলী আহত হয়। তাদের বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে, একই উপজেলার সাতকাপন ইউনিয়নের জারিয়া বিলে মানিকা গ্রামের নছর উদ্দিনের বাড়ির পার্শবর্তী হাওরে মাছ ধরতে গিয়ে বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

আজমিরীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম জানান, উপজেলার নয়াগড় গ্রামের লিলু মিয়া (১৬) সকালে মাছ ধরতে যান। এ সময় বজ্রপাত ঘটলে তিনিও ঘটনাস্থলেই মারা যান। অনেক বেলা হয়ে গেলেও সে বাড়িতে না আসায় পরিবারের লোকজন তার খুঁজে হাওরে যান। এক পর্যায়ে কালনী-কুশিয়ারা নদীর তীরে বাঁশ মহাল এলাকায় তার মরদেহ পান।

প্রবল বর্ষণ ও চা বাগান থেকে নেমে আসা পানিতে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার পুরাতন ঢাকা-সিলেট 
মহাসড়কের চন্ডিছড়া ব্রিজ হুমকির মুখে। জরুরিভাবে ব্রিজ রক্ষণাবেক্ষণ করা না হলে যেকোনো সময় সহাসড়ক দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হতে পারে।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, প্রবল বর্ষণের কারণে উপজেলার চন্ডিছড়া চা বাগান থেকে সাথছড়ি জাতীয় উদ্যান পর্যন্ত ৫টি ছোট-বড় ব্রিজ হুমকির মুখে। এর মধ্যে একটি ব্রিজ মারাত্মক ঝুঁকির্পূণ। যেকোনো সময় চন্ডিছড়া চা বাগান এলাকায় ব্রিজটি ভেঙ্গে গেলে ঢাকা-সিলেট পুরাতন মহাসড়ক দিয়ে যান চলাচল বন্ধ হতে পারে। হবিগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগ জরুরিভাবে এখনই বালুর বস্তা ও ফাইলিং করে সাময়িক মেরামত করলে ব্রিজটি রক্ষা পাবে।

এলাকাবাসী জানান, বর্ষার আগে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা ও ব্রিজ মেরামতের জন্য কতৃপক্ষ নজর দেন না। রাস্তাগুলো ভেঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ হলে তাদের টনক নড়ে। জরুরি মোরামত দেখিয়ে তখন সরকারের লাখ লাখ টাকার অপচয় করা হয়। লুটপাট করা হয় লাখ লাখ টাকা। বাড়ানো হয় জনদুর্ভোগ। তাই এবার আগে ভাগেই পদক্ষেপ নেয়ার জন্য তারা প্রশাসনকে অনুরোধ জানিয়েছেন।

করোনার মহামারীর মধ্যে হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ৬৩৮ টি মসজিদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে ৫ হাজার টাকা বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছেন হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের সাংসদ গাজী মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ মিলাদ।

বুধবার (০৩ জুন) বিকেলে নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ হলরুমে পৌর এলাকায় অবস্থিত বিভিন্ন মসজিদের পরিচালনা কমিটির কর্তৃপক্ষের কাছে চেক হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্হিত ছিলেন নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম, ভাইস চেয়ারম্যান গতি গোবিন্দ দাশ, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী ওবায়দুল কাদের হেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহমেদ মিলু, নবীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক খয়রুল বশর চৌধুরী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আমিনুর রহমান সুমন, নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওহি দেওয়ান চৌধুরী, পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, নবীগঞ্জ পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইকবাল আহমেদ বেলাল, নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ ফয়ছল তালুকদারসহ আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বাকি চেক গুলো স্ব স্ব ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে বিতরণ করা হবে বলে জানা গেছে।

হবিগঞ্জ-১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ মিলাদ বলেন, ‌‌’বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার ৫ হাজার টাকা মসজিদে মসজিদে বিতরণ করা হচ্ছে । করোনার এই মহামারীর মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার সামগ্রী মসজিদ উন্নয়নে অনেক কাজে আসবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী করোনার এই মহামারীর মধ্যে আমি সার্বক্ষণিক মাঠে আছি, জনগণের পাশে আছি। ইনশাআল্লাহ নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ও প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী যত বড় বিপদই আসুক না কেন আমি জনগণের পাশেই থাকব।’

হবিগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে আসা মনিরুল ইসলাম (৪৬) নামে এক রোগী মারা গেছে। পরে করোনা পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে। মারা যাওয়া মনিরুল ইসলাম হবিগঞ্জ শহরতলীর বহুলা গ্রামের ২ নম্বর পুল এলাকার জমির আলীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে মনিরুল ইসলামকে তার স্বজনরা হবিগঞ্জ ২৫০ শয্যা আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ দাস তাকে পরীক্ষা করে জানান সে হাসপাতালে আসার পথেই মারা গেছে। এ সময় তার স্বজনদের কাছ থেকে যে তথ্য পাওয়া যায় তাতে করোনা সন্দেহ হলে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

ডা. দেবাশীষ দাস জানান, মনিরুল ইসলাম হাসপাতালে আসার আগেই মারা যায়। তবে তার যে উপসর্গ ছিল তাতে করোনা আক্রান্ত সন্দেহ হওয়ায় তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। হবিগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাখাওয়াত হোসেন রুবেল জানান, আমরা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার বিকেলে তার দাফন সম্পন্ন করব।

স্থানীয় লোকজন জানান, মারা যাওয়া মনিরুল ইসলাম সম্প্রতি জ্বর নিয়ে ঢাকা থেকে বাড়িতে আসে। বৃহস্পতিবার তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে পরিবারের লোকজন তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

Page 1 of 2
  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular