Friday, 07 June 2019 11:21

নবীগঞ্জের মুছন আলী জীবন যুদ্ধে হার না মানা শিক্ষিত এক তরুণ

✍ মোঃ নাবিদ মিয়া, নবীগঞ্জ

নবীগঞ্জে বেকারত্বকে হার মানিয়ে জীবন যুদ্ধে মুছন আলী। অষ্টম শ্রেণীতে থাকা অবস্থায় তার বন্ধুদের অনুপ্রেরণায় অগ্রযাত্রা শুরু। এখন ডিগ্রি পাস ২য় বর্ষে অধ্যায়নরত রয়েছেন  নবীগঞ্জ সরকারি স্কুল এন্ড কলেজে। হাস্যজ্বল চেহারার অধিকারি মুছন আলী পড়ালেখার মধ্যে থেকে ও হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ শহরে করছেন হরেক রকমের ব্যবসা। অনেক সময় আনসার বিডিপির সদস্য হিসেবে কাজ করতে ও দেখা যায় তাকে। নবীগঞ্জ পৌরসভার আনমনু গ্রামের রঙ্গু মিয়ার ছেলে মুছন আলী (২৩)। তার এমন প্রতিভা দেখে অনেকেই মুগ্ধ হচ্ছেন। বাজার ব্যবসায় লোকজন, স্থানীয় সাংবাদিক ও তার বন্ধুরাসহ ফেসবুকে যে যার মত করে মুছন আলীকে নিয়ে বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন চেয়েছেন সফলতা, অনেকেই সেখানে বলেছেন শিক্ষিত বেকার যুবকদের শিক্ষা নেওয়া উচিত এই তরুণের কাছ থেকে। মুছন আলীর ব্যবসার মধ্যে রয়েছে, ভ্যানে করে কাপড়ের দোকান, পিয়ারার চাটনি, আনারসের চাটনি, লিচু ব্যবসাসহ ইত্যাদি। সরেজমিনে এ প্রতিনিধির সাথে আলাপকালে ওই তরুণ বলেন, নিজের পায়ে দাঁড়াতে চাই কারন আমি ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা করি না বর্তমানে থাকতে চাই। আপনি একজন শিক্ষিত তরুণ ফুটপাতে ব্যবসা করছেন এব্যাপারে আপনার অনুভূতি কী জানতে চাইলে আমাদের প্রতিনিধিকে মুছন আলী বলেন, ফুটপাতে ব্যবসা করি আর পাঁচ তলায় ব্যবসা করি তাতে কোনো পার্থক্য আছে বলে আমি মনে করি না। কারন ব্যবসা ব্যবসাই। আজ এখানে ব্যবসা করছি বলেই আমার বন্ধুরাসহ অনেক গুনি মানুষেরা আমাকে অনুপ্রেরণা দিচ্ছেন। তাতেই আমি গর্বিতবোধ করছি। পড়ালেখা করছি চাকরি হবে কী হবে না নিশ্চিয়তা নেই। তবে আমি ব্যবসার মধ্যে এক মহত্ব পাচ্ছি। দেশে হাজার হাজার উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত বেকার যুবকরা রাস্তায় ঘুরছেন। তাদের প্রতি আমার অনুরোধ বেকার না থেকে নিজেরা কিছু করা দরকার । ইচ্চা থাকলেই উপায় হয়, হয়তো অনেকেই ভাবছেন পড়ালেখা করেছি চাকরি পেতেই হবে এটা ভুল। নিজের প্রতিভাকে জাগিয়ে তুলার মধ্যে রয়েছে আসল চাকরি। 

Last modified on Saturday, 08 June 2019 06:13
Login to post comments
  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular