নবীগঞ্জের সংবাদ

নবীগঞ্জের সংবাদ (977)

করোনাকালীন সময়ে খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে প্রতি ইঞ্চি জমি আবাদের আওতায় আনার লক্ষ্যে এবছর কৃষি প্রণোদনায় ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। বিগত বছরগুলোতে বিনামূল্যে ধানের বীজ ও সার বিতরণ করে থাকলেও এবছর তার পাশাপাশি বিতরণ করা হচ্ছে ১৫ প্রকার সবজি বীজ ও ফলের চারা। শুধু তাই নয়, সবজি বাগান স্থাপনে সার ক্রয়, বেড়া তৈরি ও পরিচর্যা বাবদ সংশ্লিষ্ট কৃষকদের মোবাইলে বিকাশের মাধ্যমে ১৯৩৫ টাকা করে প্রদান করা হচ্ছে। এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার এ, কে, এম, মাকসুদুল আলম জানান, খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি করতে এবং করোনাকালীন সময়ে পারিবারিক পুষ্টি চাহিদা পূরণ করতে এ বছর খরিফ-১ মৌসুমে প্রথম ধাপে প্রতি ইউনিয়নের ৩২ টি বসতবাড়িতে পারিবারিক পুষ্টি বাগান স্থাপন করা হচ্ছে। সে লক্ষ্যে উক্ত কৃষি পরিবারে সবজি বীজ, ফলের চারা ও মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে ১৯৩৫ টাকা প্রদান করা হয়েছে। নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম গত ৩০ জুন এ কার্যক্রম শুভ উদ্ভোধন করেন। বর্তমানে ব্লক পর্যায়ে কর্মরত উপ সহকারি কৃষি কর্মকর্তাগণের সার্বক্ষণিক পরামর্শে বসতবাড়ির আঙ্গিনায় এসব পুষ্টি বাগান স্থাপন করা হচ্ছে। সরকারের এ মহতি উদ্যোগ সফল হলে একদিকে পারিবারিক পুষ্টি চাহিদা পূরণ হবে অন্যদিকে এসব বাগানে কাজ করে মানষিক স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটবে।

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলায় বেড়েই চলছে করোনার প্রকোপ। তবু ও থেমে নেই মানুষের অবাধে চলাফেরা। এভাবে চলতে থাকলে করোনার সংক্রমন দ্রুত আকারে বৃদ্ধি পাওয়ার শঙ্কা।দেশের সাথে তাল মিলিয়ে প্রতিদিনের তালিকায় নবীগঞ্জে আসছে করোনার পজিটিভ রিপোর্ট। এতে করে আতংক দেখা দিয়েছে নবীগঞ্জ উপজেলায়।শনিবার (০৪ জুলাই) করোনার রিপোর্টে ৫ জনের পজিটিভ আসে।নবীগঞ্জ উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে মোট ৮৮৬ জনের তাদের মধ্যে আজ নতুন করে ৫ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।এনিয়ে নবীগঞ্জ উপজেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৬ জন।মোট ৬৬৮ জনের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।এরমধ্যে চিকিৎসা শেষে সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪০ জন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আব্দুস সামাদ।

সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি এম এ হকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ করেছেন হবিগঞ্জ-১ নবীগঞ্জ-বাহুবলের সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ মিলাদ এমপি। ৩ জুলাই শুক্রবার এক শোক বার্তায় তিনি মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। এক বার্তায় তিনি বলেন, ‘সিলেট বিভাগের রাজনৈতিক, সামাজিক অঙ্গণে এম এ হক ছিলেন সকলের  পরম প্রিয় একজন শ্রদ্ধেয় আলোকিত মানুষ । নির্লোভ নিরহংকার বিশাল মনের দরদী সমাজ সেবক ছিলেন। তিনি ছিলেন সাদা মনের সত্যিকার একজন দেশপ্রেমিক। সাবেক মন্ত্রী মরহুম দেওয়ান ফরিদ গাজী সাহেবের লামাবাজারস্থ বাসার পিছনে এম এ হক’র বাসা ছিল পারিবারিকভাবে তাদের সু সম্পর্ক ছিল। এছাড়া তাদের পরিবারের পক্ষ থেকেও গভীর শোক জানানো হয়। মহান আল্লাহ রাব্বুল আল আমিন যেন তিনিকে জান্নাতবাসী করেন-আমীন।

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি জে আই স্যুট গার্মেনন্স নামক স্থানে সঞ্জু বিশ্বাস (৪২)নামে এক মানসিক রোগির লাশ উদ্ধার শেরপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ। পুলিশ জানায়, মহাসড়কের আউশকান্দি এলাকায় স্থানীয় জনতা লাশ থেকে খবর দিলে শেরপুর হাইওয়ে থানা পুলিশে খবর দিলে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। লাশের মরাদেহ দেখে তার আতœীয় স্বজন শেরপুর থানায় আসেন। লাশের আতœীয় স্বজন জানান মরাদেহ ব্যাক্তি সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার কাশিলা গ্রামের অমর বিশ্বাসের পুত্র সঞ্জু বিশ্বাস। সে একজন মানসিক রোগি। পুলিশ লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করে লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করছে। শেরপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ এরশাদুল হক জানান  নিহত সঞ্জু বিশ্বাসের পরিবারের লোকজনের দাবি সঞ্জু বিশ্বাসের বিভিন্ন রোগ ছিল  হয়তো সে রোগের কারনে মারা গেছে। আমরা প্রাথমিক ধারনা করতেছি সে রোগের কারনে মারা গেছে তার শরিরের কোন অংশেই আঘাতের চিহ্ন নেই ময়না তদন্তের রিপোট আসালে পরে বুঝা যাবে কি কারনে তার মৃত্যু হয়েছে।

নবীগঞ্জ উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের বানুদেব গ্রামে রাস্তার মেরামত কাজে বাধা প্রধানকে কেন্দ্র করে দু পক্ষের লোকের সংঘর্ষে মহিলাসহ ১৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের  নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে গুরুত্বর আহত ৩ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে। শুক্রবার (০৩ জুলাই) সকাল ১১টায় দেবপাড়া ইউনিয়নের বানুদেব গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী আহতসূত্রে জানাযায়, বানুদেব গ্রামের বাসিন্দা সাইম উদ্দিন প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমের ন্যায় এবছর বাড়ীর চলাচলের রাস্তা কাজ করতে শুরু করেন এতে বাধা প্রদান করেন সামছু উদ্দিনগংরা। এ নিয়ে গত বৃস্পতিবার সকালে হাতাহাতিঘটনা ঘটে। পরে এঘটনায় সাইম উদ্দিন থানায় একটি লিখত অভিযোগ দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে স্থানীয় ইউপি সদস্য হেলাল মিয়া ও সাবেক মেম্বার আব্দুল হাই বিষয়টি মিমাংসা করার আশ্বাস প্রদান করেন। শুক্রবার সকালে  গ্রামে বিষয়টি সমাধানের জন্য বসার আগেই সামছু উদ্দিন,ইসলাম উদ্দিন, বুরহান উদ্দিন, তরাছ উদ্দিন,আলাল মিয়া, ইব্রাহিম,সলিম উদ্দিনসহ একদল লোক রামদা, পাইব,লাটিসহদেশীয় অস্ত্র  নিয়ে সাইম উদ্দিনের পরিবারের উমর এলোপাতারি হামলা চালায়। এর উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে ছড়িয়ে পড়ে এতে মহিলাসহ অনন্ত ১৫ জন আহত হন। আহতের মধ্যে উভয় পক্ষের ৯ জনকে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা  প্রদান করেন। এদের মধ্যে গুরুত্বর আহত সাইম উদ্দিন(৫০) তার পুত্র মাওলানা ইমাদ উদ্দিন, ও সহিবুর উদ্দিনের পুত্র বাহার উদ্দিন(১৬)কে সিলেট ওসমানী মেডিকেতল কলেজ হাসাপাতালে প্রেরন করা হয়।অন্যান্য আহতরা হলেন সামছু উদ্দিন(৩০),আঃ আজিজ(৩৫), ফয়েজ আহমদ(৩৫),সফিনা বেগম (৩০),হাবিবুর রহমান (২০)ও মহি উদ্দিন (১৮)কে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্তি ও প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

নবীগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর কবির মিয়ার নাতি হুমায়ূন আহমেদ এর হাতে শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়ে ১২ বছর বয়সী এক কিশোর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বিকেলে নবীগঞ্জ পৌর  এলাকার সালামতপুর নামকস্থানে ঘটনাটি ঘটে। নির্যাতনের শিকার গুরুতর আহত কিশোর আলেক মিয়া (১২) সালামতপুর গ্রামের রিক্সা চালক কাজল মিয়ার ছেলে। স্থানীয়রা জানান, কাজল মিয়া অতি দরিদ্র একজন লোক। পরিবারে স্বচ্ছলতা ফেরাতে ১২ বছর বয়সী কিশোর ছেলেকে পাড়ার লোকদের গরু রাখতে মাঠে যেতে হয় প্রতিদিন। বৃহস্পতিবার মাঠে গরু ছড়ানো শেষে আলেক মিয়া বাড়ি ফেরার পথে হুমায়ূন ছেলেটিকে ডেকে নিয়ে বেধরক মারপিট করতে থাকে। একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে আঘাত করে গুরুতর জখম করে। এসময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আলেক মিয়াকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় সুশীল সমাজে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয়দের মধ্যে দেখা দিয়েছে চাপা ক্ষোভ।
রিক্সা চালক কাজল মিয়ার স্ত্রী কিশোর আলেক মিয়ার মা বলেন, আমার বুকের ধন আমার মানিক। কাউন্সিলরের নাতি হুমায়ূন এভাবে আমার ছেলেকে মারতে পারলো কিভাবে। তার কি একটু ও দয়া মায়া হয়নি। আমার ছেলের শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণ রক্ত ঝড়েছে। আমি তার বিচার চাই। বিষয়টি জানতে হুমায়ূনের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার ব্যবসা প্রতিষ্টান ঘটনাস্থলে গিয়ে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

নবীগঞ্জ উপজেলার করোনা ভাইরাসের সার্বিক পরিস্থিতি সরেজমিনে ঝাটিকা পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামরুল হাসান। বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে জেলা প্রশাসক মোঃ কামরুল হাসান নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরিদর্শন করেন। এ সময় করোনা আক্রান্ত ১ টি পরিবার কে ৫ হাজার টাকার চেক প্রদান করেন এবং অসহায় লোকদের খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়। এ সময় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে করোনার সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন।স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরিদর্শনকালে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল, নবীগঞ্জ উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুস সামাদ,কুর্শী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী আহমেদ মুসা,নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাজী ওবায়দুল কাদের হেলাল।

নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জীবানুনাশক টানেল উদ্বোধন করলেন হবিগঞ্জ ১ (নবীগঞ্জ-বাহুবল) আসনের সাংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মাদ শাহ নওয়াজ মিলাদ পক্ষে নবীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পাল। বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) বেলা ১২ টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান ফটকে জীবানুনাশক টানেলটি উদ্বোধন করা হয়। জানা যায়, নবীগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা লন্ডন প্রবাসী মোঃ কমর উদ্দিন জুলহাস এর উদ্যোগে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে করোনাভাইরাস সতর্কতায় জীবানুনাশক টানেল প্রদান করেন।এ সময় উপস্থিত ছিলেন,নবীগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী অফিসার বিশ্বজিত কুমার পাল, উপজেলা প. প. কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুস সামাদ, ইউপি চেয়ারম্যান আলী আহমদ মুসা,উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক কাজী ওবাদুল হেলাল,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক আহমদ মিলু, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক লোকমান আহমদ খান, পৌর যুবলীগের আহবায়ক ফজল আহমদ চৌধুরী, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব,প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোঃ আলমগীর মিয়া, সাবেক সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার পাল হিমেল, পৌর কাউন্সিলর জায়েদ চৌধুরী, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দিলারা হোসেন, সাধারন সম্পাদক সইফা রহমান কাকলী, শ্রমিকলীগের সাধারন সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম অপু,পৌর সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ইকবাল আহমেদ বেলাল, পৌর শ্রমিকলীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান মিলন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সল তালুকদার, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি বাবলু আহমেদ প্রমুখ।

নবীগঞ্জে প্রকল্প কাজ শুরুর আগেই টাকা উত্তোলনের সিদ্বান্ত শিরোনামীয় একটি সংবাদ গত ২৫ জুন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম কে জরিয়ে চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত ছবিসহ অনিবার্জ বসত ভূল সংবাদ প্রকাশ করা হয়। চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত ছবি দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করায় আন্তরিক ভাবে দুঃখ প্রকাশ করতেছি।

নবীগঞ্জ উপজেলায় দু’টি পরিবারকে একঘরে করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার দীঘলবাক ইউনিয়নের কারখানা গ্রামের মৃত- আব্দুল হেকিমের পুত্র মোঃ আব্দুল আউয়াল বুধবার দুপুরে নবীগঞ্জ প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ অভিযোগ করেন। পূর্ব শক্রতার জের ধরে এবং ভুমি জবর দখলে বাধা প্রদান করায় তাদেরকে প্রভাবশালী মহল একঘরে করে রেখেছে বলে তিনি সংবাদ সম্মেলনে জানান। ওই গ্রামের মৃত হাজ্বী আকবর উল্লাহর পুত্র খালিছ মিয়া ও তার ভাতিজা উপজেলা ছাএলীগের সাবেক সভাপতি আবু সালেহ জীবন এবং তাদের লোকজন ওই দু’টি পরিবারের সদস্যদেরকে একঘরে করে রাখার পাশাপাশি নানা ভাবে হুমকি ধামকি প্রর্দশন, চাঁদা দাবী এবং ষড়যন্ত্র মূলক মামলা দিয়ে হয়রানী করছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়। একঘরে করে রাখায় আব্দুল আউয়ালসহ দু’টি পরিবারের লোকজন কোথায়ও যেতে পারছেন না এমনকি সরকারী রাস্তাও তারা ব্যবহার করতে পারছেন না। ফলে তারা সামাজিক ও মানসিকভাবে ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছেন। এ ব্যাপারে গত ২৮ জুন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। স্থানীয় এমপি, জেলা প্রশাসক ও থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিত কুমার পালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে যথা সম্ভব আইনানুগ পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular