October 5, 2022
নবীগঞ্জের সংবাদ

নবীগঞ্জের সংবাদ (1784)

নবীগঞ্জ উপজেলার কুর্শী ইউনিয়নের রাইয়াপুর গ্রামে তাহিরপুর মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র রবিউল আহমেদ (১৩) নামের এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় লোকজন বাড়ির উত্তর পাশে মসজিদ সংলগ্ন একটি গাছে রবিউল আহমেদকে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে নবীগঞ্জ থানা পুলিশকে বিষয়টি অবগত করলে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ডালিম আহমদের নির্দেশনায় একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশটির সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে থানায় নিয়ে আসেন। রবিউল আহমেদ উপজেলার কুর্শী ইউনিয়নের রাইয়াপুর গ্রামের মৃত ছালিক মিয়ার পুত্র। রবিউল আহমেদ তাহিরপুর মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ডালিম আহমদ।

নবীগঞ্জ উপজেলার ১২নং কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নের শ্রীমতপুর গ্রামের লন্ডন প্রবাসী ও বিশিষ্ট সমাজসেবক শেখ মোস্তফা কামাল আবু তালিবের উদ্যোগে ২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মধ্যে খাতা, কলম, স্কেল শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। জানা যায়- নবীগঞ্জ উপজেলার পৌরসভায় অবস্থিত পূর্ব তিমিরপুর গ্রামের দারুল হিকমাহ জামেয়া ইসলামিয়া আলীম মাদ্রাসা ও উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নে অবস্থিত হযরত শাহজালাল লতিফিয়া মাদ্রাসায় গতকাল সোমবার দুপুরে ও বিকেলে অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের মধ্যে খাতা, কলম, স্কেল শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, দারুল হিকমাহ জামেয়া ইসলামিয়া আলীম মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ আব্দুল আহাদ ও আলী বাহার, আব্দুল মোছাব্বির, শেখ সফিকুর রহমান মিন্টু, শেখ মনিরুল ইসলাম, শেখ জুবায়েদ আহমেদ, শেখ মঈনুল ইসলাম, শেখ সালাউদ্দিন ইসলাম, মোঃ করছু মিয়া প্রমুখ। আউশকান্দি ইউনিয়নে অবস্থিত হযরত শাহজালাল লতিফিয়া মাদ্রাসায় উপস্থিত ছিলেন অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রিন্সিপাল মাওলানা মুফতি মুজিবুর রহমান, মোঃ রখি মিয়া, মোঃ মিরাস উদ্দিন, শেখ সফিকুর রহমান মিন্টু, শেখ জুবায়েদ আহমেদ, শেখ মঈনুল ইসলাম, শেখ সালাউদ্দিন ইসলাম প্রমুখ। এ সময় শেখ মোস্তফা কামাল আবু তালিব মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন- শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড শিক্ষার্থীদের দেশ সেবারলক্ষ্য নিয়ে মানব কল্যানে লেখা পড়ার বিকল্প নেই। তাই সকল শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া ও জ্ঞান অর্জনে মনোনিবেশ করার আহবান জানান।

নবীগঞ্জে শাখা বরাক গবাদি পশু খামার দিয়ে সফল উদ্যোক্তা জামশেদ চৌধুরী।তিনি দেশি বিদেশি গবাদি পশু গরু,ছাগল,হাঁস,মুরুগ,বিভিন্ন প্রজাতির পাখি লালন পালন করছেন বলে সরজমিনে গিয়ে জানাযায়।তিনি তার খামারে ৫০-৬০ টি উপর দেশি বিদেশি গরু রয়েছে এছাড়াও বিভিন্ন প্রজাতির হাঁস, মুরগি, পাখি দেখা যায় । গবাদি পশু পালনের পাশাপাশি কৃষি কাজের সাথে জড়িত রয়েছেন।জামশেদ মিয়া নবীগঞ্জ পৌর এলাকার চরগাঁও গ্রামের বাসিন্দা।

 

নবীগঞ্জ শহরের নতুন বাজার মোড় পয়েন্টে তাহসিন প্লাজায় এম ডি ফ্যাশন এর আনুষ্ঠানিক ভাবে শুভ উদ্বোধন বর্নাঢ্য ও জাঁক জমকপূর্ণ আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার রাতে তাহসিন প্লাজার এম ডি ফ্যাশনের প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে শুভ উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরী বুলবুল। এ উপলক্ষে তাহসিন প্লাজার এমডি ফ্যাশনের রুমে দোয়া পরিচালনা করেন আল আমিন। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আবু সিদ্দিক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজভী আহমেদ খালেদ। অনুষ্টানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক লোকমান আহমেদ খান, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল সরদার, প্রেসক্লাসের যুগ্ম সম্পাদক তৌহিদ চৌধুরী নবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহ ফয়সল তালুকদার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি মুহিনুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম রুবেল, নবীগঞ্জ মডেল প্রেসক্লাবের অর্থ সম্পাদক মোঃ সাগর মিয়া, যুবলীগ নেতা রুমেল হাসান, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা, আব্দুল আজিজ, জুবায়ের আহমদ রাকিব, জয় আহমেদ, উৎস চৌধুরী, সুজেল আহমেদ মিজান, ইব্রাহিম আহমেদ, শাহ তারেক, জাবেল আহমদ জিসান, আল-মামুন, প্রমি, রাহাত, হৃদয় দাশ, মাহি চৌধরী, দেবপাড়া ইউপি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুমান আহমেদ, গজনাইপুর ইউপি ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবুলখয়ের জুবায়ের, কুশি ইউপি ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আমিনুর রহমান আমিন, বাউসা ইউপির ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফনী যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ রুবেল, শেখ মহিউদ্দিন, মারজু আহমেদ, আফসার আহমেদ, জাকারিয়া প্রমুখ।

নবীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী ‘পৌরকর সেবা সপ্তাহ ২০২২’ এর ৫ম দিনে সমাপনী বক্তব্যে পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, নবীগঞ্জ পৌরসভা কর্তৃক আয়োজিত ‘পৌরকর সেবা সপ্তাহ ২০২২’ -এ আপনাদের ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা এবং আন্তরিক সহযোগিতার মাধ্যমে ‘পৌরকর সেবা সপ্তাহ ২০২২’ সফল ও সার্থক করার জন্য আপনাদের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।’ তিনি বলেন, ‘আপনাদের এ অনুপ্রেরণায় পৌরসভার সকল কর্মকাণ্ডে সাফল্য বয়ে আনবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।’ তিনি পৌরকর সেবা সপ্তাহের সমাপনী অনুষ্ঠানে পৌর পরিষদ, ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, পৌর করদাতাবৃন্দ, পৌরসভার সকল কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দ সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ‘কর সেবা সপ্তাহ ২০২২’ সফল ও সার্থক করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। তিনি সকলের সহযোগিতা অব্যাহত থাকলে পৌর কর সেবা সপ্তাহ প্রতি বছর সেপ্টেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত হবে বলে তিনি দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন।উল্লেখ্য, নবীগঞ্জ পৌরসভা কর্তৃক ৫দিন ব্যাপী ‘পৌর কর সেবা সপ্তাহ ২০২২’ নবীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী গত ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ রোজ রবিবার সকাল ৯ ঘটিকায় পৌরসভার কনফারেন্স রুমে উদ্বোধন করেন।‘আমরা সবাই দেবো কর/ নবীগঞ্জ পৌরসভা হবে স্বনির্ভর’ এই শ্লোগানকে প্রতিপাদ্য করে নবীগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে ‘পৌরকর সেবা সপ্তাহ ২০২২’র আজ সমাপনী দিনে উপস্থিত ছিলেন নবীগঞ্জ পৌরসভার প্যানেল মেয়র-৩ ফারজানা মিলন পারুল, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পূর্ণিমা রানী দাশ ও সৈয়দা নাসিমা বেগম, ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ কবির মিয়া, ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ ফজল আহমদ চৌধুরী, ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নানু মিয়া, পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী ও সচিব (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ তরিকুল ইসলাম, সহকারী প্রকৌশলী মোঃ শহিদুল হকসহ পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ, পৌর করদাতাবৃন্দ ও সুধীবৃন্দ।উল্লেখ্য, করদাতাদের উৎসাহিত করতে সম্মানীত করদাতা প্রত্যেকের জন্যে ছিলো ১০% রিবেট সুবিধাসহ আকর্ষণীয় পুরস্কার ও সম্মাননা সনদ।‘পৌরকর সেবা সপ্তাহ ২০২২’ এর আজ সমাপনী দিনে সম্মানিত পৌর করদাতারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে পৌরকর প্রদান করেছেন। উক্ত পৌর কর সেবা সপ্তাহে প্রায় ১০০০জন পৌর নাগরিক পৌরকর প্রদান করেছেন বলে জানান পৌর কর্তৃপক্ষ।

নবীগঞ্জ  শহরের মাইক্রো বাস টার্মিনালে নবীগঞ্জ উপজেলা শ্রমিক ইউনিয়ন আজ সন্ধ্যায় নির্বাচিত কমিটির শপথ অনুষ্টানের আয়োজন  করা হয়। এই উপলক্ষে শহরে মাইকিং ও দাওয়াত পত্র বিতরন করা হয়। নবীগঞ্জে শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনের পর থেকে দু গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পরে। শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ইয়াত্তর মিয়ার অনুসারীরা হবিগঞ্জ বাস, মিনিবাস মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন কে সামনে রেখে একই স্থানে নির্বাচনে পরামর্শ সভার আহবান করছে।এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকের পক্ষে বিপক্ষে লেখালেখি হচ্ছে। এ নিয়ে শ্রমিকদের মাঝে উত্তজনা বিরাজ করচ্ছে।  উভয় পক্ষই তাদের আয়োজন বাস্তবায়ন করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।স্থানীয় জনগন ও ব্যবসায়ী শ্রমিকদের  মাঝে উত্তজেনা দেখে আতংকিত  হয়ে পরেছেন।  আজ বড় ধরনের সংঘাত থেকে নবীগঞ্জ  উপজেলাবাসী রক্ষায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ  কামনা করচ্ছেন সচেতন নাগরিকরা।এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার  অফিসার ইনচার্জ মোঃ ডালিম আহমদ জানান,পাল্টা-পাল্টি কোন অনুষ্ঠানে  খরব আমার জানা নেই। নির্বাচিত কমিটির পক্ষের অনুষ্ঠানে খবর শুনেছি। যদি এমন কোন অনুষ্ঠানে খবর পাই তাহলে নবীগঞ্জের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে আইননুক ব্যবস্থা নিব। 

র‌্যাব-৯ এর একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চৈতন্যপুর এলাকা থেকে সৈয়দ শামসুল ইসলাম আতিক (২৬) নামের এক যুবককে ১টি রিভলবার, কার্তুজসহ তাকে আটক করে নবীগঞ্জ থানা পুলিশে সোর্পদ করেছেন। ধৃত আতিক মৌলভীবাজার জেলার বড়বাড়ি গ্রামের মৃত সৈয়দ এখলেছুর রহমানের ছেলে। বর্তমানে তারা চৈতন্যপুর বসবাস করেন। এ ব্যাপারে র‌্যাব-৯ এর কর্মকর্তা মোঃ গোলাম সারওয়ার বাদী হয়ে থানায় মামলা দিয়েছেন। সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানাযায়, র‌্যাব-৯ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন, নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের চৈতন্যপুর গ্রামের চৌধুরী বাড়ীতে ধর্তব্য অপরাধ সংগঠনের জন্য মারাত্মক অস্ত্রশস্ত্রসহ কতিপয় লোক অবস্থান করিতেছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিদের্শে র‌্যাব-৯ এর ডিএডি মোঃ গোলাম সরওয়ার সিপিসি-১, শায়েস্তাগঞ্জ, হবিগঞ্জের একদল র‌্যাব সদস্য রবিবার দিবাগত রাতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর সময় সৈয়দ শামসুল ইসলাম আতিক (২৬) কে আটক করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি ও নিজ হাতে বের করে দেয়া মতে তার বসত ঘর থেকে গোলাপী রংয়ের ছোট শপিং ব্যাগের ভিতর রক্ষিত একটি লোহার তৈরী কালো রংয়ের দেশীয় তৈরী রিভলবার. যাহার কাঠের বাটসহ ১০ ইঞ্চি লম্বা, ২টি ফায়ারকৃত বুলেটের কার্তুজ এবং ৩টি ফায়ারকৃত বুলেটের সামনের অংশ ধৃত সৈয়দ শামসুল ইসলাম আতিকের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয়। সোমবার সন্ধ্যায় ধৃত সৈয়দ শামসুল ইসলাম আতিক কে অস্ত্র ও কার্তুজসহ থানা পুলিশে সোর্পদ করেছেন র‌্যাব-৯। এ ব্যাপারে র‌্যাব-৯ এর কর্মকর্তা মোঃ গোলাম সরওয়ার বাদী হয়ে নবীগঞ্জ থানায় সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা নং ১৭, তারিখ ২৬-০৯-২০২২ইং দায়ের করেছেন।

নবীগঞ্জ পৌর এলাকার ওসমানী রোডস্থ বায়তুন নূর জামে মসজিদের বিতরে রাখা জুতা রাখার বক্স থেকে ৩ দিনের এক নবজাতক শিশুকে উদ্ধার করেছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।  পুলিশ পৌর এলাকার  আনমুনু গ্রামের জৈনক এক মহিলার কাছে শিশুটিকে হেফাজতে রেখেছেন।  পুলিশ ও  এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়,সোমবার এশার নামাজের সময় মসজিদে এক মুসল্লী হঠাৎ করে  নব জাতক বাচ্চার কান্নার শব্দ শুনতে পান। জুতার বক্সে নবজাতকে দেখতে পেয়ে নবীগঞ্জ থানা পুলিশকে অবগত করলে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ডালিম আহমেদের নির্দেশনায় এস আই আবু সাঈদ,বিজয়সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুটিকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ডালিম আহমেদ জানান,নবজাতক শিশুটিকে উদ্ধার করে নবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা প্রদান করে স্থানীয় জৈনক একজন মহিলার অধীনে রাখা হয়েছে।

হাজারো মানুষের ভালবাসা নিয়ে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন নবীগঞ্জ উপজেলার বাবর নিাবার্চিত  হবিগঞ্জ জেলার সনামধন্য সালিশ বিচারক জনপ্রিয় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল হাই। ২৩ সেপ্টেম্বের,শনিবার ৩ দফা নামাজে জানাজা শেষে বাউসা ইউনিয়নের বদরদি নিজ গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে মরহুম আব্দুল হাইয়ের লাশ দাফন করা হয়।মরহুমের ১ম জানাজার নামাজ শুক্রবার সকাল ১১ টায় চৌধুরী বাজার ধুলচাতল তাজিয়া মুবাশি^রিয়া মাদ্রাসা মাঠে, ২য় জানাজা বেলা ২ টায় নবীগঞ্জ জেকে হাই স্কুল মাঠে এবং ৩য় জানাজা মরহুমের গ্রামের বাড়ি বদরদী মাঠে অনুষ্টিত হয়।নবীগঞ্জ জেকে হাই স্কুল মাঠে ২য় জানাজার আগে মরহুম আব্দুল হাই এর জীবনাদর্শ নিয়ে সংক্ষিপ্ত স্মৃতিচারণ করেন,নবীগঞ্জÑবাহুবলের সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব শেখ সুজাত মিয়া, জেলা পরিষদের প্রসাশক ডাঃ মুশফিক হোসেন চৌধুরী,জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী,নবীগঞ্জ পৌর সভার মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী,সাবেক মেয়র তোফাজ্জল ইসলাম চৌধুরী,সিলেট মদন মোহন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ্য আবুল ফতে ফাত্তাহ,বাউশা ইউপি চেয়ারম্যান সাদিকুর রহমান শিশু,সদর ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব,সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তি যোদ্ধা আব্দুর রউফ,আ.ক.ম ফখরুল ইসলাম,নুরুল ইসলাম।জানাযার নামাজে অংশ নেন,উপজেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহব্বায়ক মুজিবুর রহমান সেফু,যুগ্ম আহব্বায়ক শিহাব আহমেদ চৌধুরী,মজিদুল করিম মজিদ,বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মুমিন,বানিয়াচুং বিএনপির সিনিয়র-সহ সভাপতি আব্দুল হাদী,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজভী আহমেদ খালেদ,শিক্ষক সমিতির নেতা শামিম আহমেদ চৌধুরী,বিএনপি নেতা মুশফিকুজ্জামান চৌধুরী,মনর উদ্দিন,পৌর যুবদলের আহব্বায়ক মোঃ আলমগীর মিয়া,উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব রায়েছ আহমেদ চৌধুরী,যুবদল নেতা অলিউর রহমান অলি,আবুল কালাম মিঠু,ওয়াহিদুজ্জামান জুয়েল,শামিম আহমেদসহ নামাজে জানাজায় সামাজিক, রাজনৈতিক,শিক্ষক, সাংবাদিক,ব্যবসায়ী,দিনমজুরসহ সকল শ্রেণীপেশার লোকজন অংশগ্রহণ করেন।পরে মরহুমের লাশবাহী গাড়িতে উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন বিএনপি,যুবদল, ও ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা জানান।  তিনি নবীগঞ্জ উপজেলার বিশিষ্ট শালিস বিচারক, রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিত্ব বাউসা ইউনিয়নের বারবার নির্বাচিত স্বর্ণ পদক প্রাপ্ত প্রাক্তন চেয়ারম্যান সকলের পরিচিত মূখ ছিলেন। গত বৃহস্পতিবার সকাল ৭ টায় ঢাকাস্থ ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। এর আগে তিনি ৭ সেপ্টেম্বর নিজ বাসায় সিড়িঁ থেকে পা পিচলে পড়ে গিয়ে মাথায় আহত হন। গুরুতর অবস্থায় তিনি ঢাকাস্থ ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হসপিটালে আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন।দীর্ঘদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে বৃহস্পতিবার সকালে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। তার মৃত্যুর খবর নবীগঞ্জ পৌছলে উপজেলার সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে। তিনি এক সময় নবীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি হিসেবে দীর্ঘদিন দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া এই বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আব্দুল হাই নবীগঞ্জ পৌরসভার ১ম নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেন।পরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিন্দ্বন্দ্বিতা করেন। তিনি উপজেলাসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে বড় ধরনের সংঘাত, সংঘর্ষ, দাঙ্গা-হাঙ্গামার ঘটনায় সৃষ্ট সালিশ বিচারে অংশ নিয়ে বিচক্ষনতার সহিত দায়িত্ব পালন করে দক্ষতার স্বাক্ষর রাখেন। মরহুমের ৩য় জানাজা মরহুমের গ্রামের বাড়ি বদরদী মাঠে ২টা৪৫ মিনিটে  অনুষ্টিত হয়। ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী, ৬ কন্যা ও একমাত্র পুত্র সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে যান। জানাযার নামায শেষে তাকে তার গ্রামের বাড়ী বদরদিতে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

নবীগঞ্জ উপজেলার বিশিষ্ট শালিস বিচারক, রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিত্ব বাউসা ইউনিয়নের বারবার নির্বাচিত স্বর্ণ পদক প্রাপ্ত প্রাক্তন চেয়ারম্যান সকলের পরিচিত মূখ আলহাজ্ব আব্দুল হাই আর নেই (ইন্নালিল্লাহি—- রাজিউন)। গত বৃস্পতিবার সকাল ৭ টায় ঢাকাস্থ ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হসপিটালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। এর আগে তিনি ৭ সেপ্টেম্বর নিজ বাসায় সিড়িঁ থেকে পা পিচলে পড়ে গিয়ে মাথায় আহত হন। গুরুতর অবস্থায় তিনি ঢাকাস্থ ইসলামী ব্যাংক সেন্ট্রাল হসপিটালে আইসিইউতে ভর্তি ছিলেন। দীর্ঘদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে বৃহস্পতিবার সকালে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। তার মৃত্যুর খবর নবীগঞ্জ পৌছলে উপজেলার সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে। তিনি এক সময় নবীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি হিসেবে দীর্ঘদিন দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া এই বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আব্দুল হাই নবীগঞ্জ পৌরসভার ১ম নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেন। পরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিন্দ্বন্দ্বিতা করেন। তিনি উপজেলাসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে বড় ধরনের সংঘাত, সংঘর্ষ, দাঙ্গা-হাঙ্গামার ঘটনায় সৃষ্ট সালিশ বিচারে অংশ নিয়ে বিচক্ষনতার সহিত দায়িত্ব পালন করে দক্ষতার স্বাক্ষর রাখেন। মরহুমের ১ম জানাজার নামাজ আজ সকাল ১১ টায় চৌধুরী বাজার ধুলচাতল তাজিয়া মুবাশি^রিয়া মাদ্রাসা মাঠে, ২য় জানাজা বেলা ২ টায় নবীগঞ্জ জেকে হাই স্কুল মাঠে এবং ৩য় জানাজা মরহুমের গ্রামের বাড়ি বদরদী মাঠে অনুষ্টিত হবে। ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী, ৬ কন্যা ও একমাত্র পুত্র সন্তানসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে যান।

  1. LATEST NEWS
  2. Trending
  3. Most Popular